Health Tips

 সকালে খালি পেটে ভূলেও এই ৬ ধরনের খাবার খাবেন না- ঘটতে পারে মহাবিপদ! 


বাংলায় একটা প্রচলিত প্রবাদ আছে " স্বাস্থ্যই সকল সুখের মূল"। আর তাই আমরা কম বেশি সবাই নিজেকে সুস্থ রাখতে অনেক খাবার পরিহার করে থাকি। সাধারণত আমরা অসুস্থ হয়ে পড়লে চিকিৎসকের শরণাপন্ন হই। ঠিক ঐ সময়ে চিকিৎসরা  আমাদের শরীরে সমষ্যা নির্ণয় করে ঔষধ দেন। এছাড়াও স্বাস্থ্য সম্পর্কিত নানান আদেশ উপদেশ দেন। এমনকি বিভিন্ন ধরনের খাবারগুলো না খাওয়ার পরামর্শ দেন। এখন প্রশ্ন হল চিকিৎসারা কেন খাবারের বিষয়ে পরামর্শ দেন? এটা থেকে আমরা বুঝে নিতে পারি সকল খাবার সব সময় খাওয়া মোটেই উচিৎ নয়। তাই আমরা আজ আপনাদের সামনে তুলে ধরবো কোন ৬ টি খাবার সকালে খালি পেটে খাওয়া মোটেই ঠিক নয়,, তা নাহলে ঘটতে পারে মহাবিপদ ! চলুন জেনে নেয়া যাক কি সেই খাবার গুলো। 


এক. 

চাঃ আমাদের মধ্যে অনেকে আছেন যারা চা পছন্দ করেন। আবার এমনও মানুষ পাবেন যারা সকালে ঘুম থেকে উঠে চায়ের কাপে চুমুক না দিলে দিন শুরু হয় না। সাধারণ আমরা চা খেয়ে থাকি শরীরকে চাঙা ও সতেজতা রাখার জন্য। কিন্তু সেই চায়েই যদি বিপদ ডেকে আনে তাহলে না খাওয়াই সবচেয়ে উত্তম কাজ। তাহলে আসল কারণ টা জেনে রাখুন সকালে খালি পেটে কেউ চা খাবেন না। কারণ খালি পেটে গরম চা খেলে হজম শক্তিতে ব্যাঘাত ঘটায় ও বুকের মধ্যে জ্বালাপোড়া সৃষ্টি করে। এছাড়াও সকালে খালি পেটে চা খাওয়ার কারণে গ্যাস্ট্রিক রস ক্ষরণের মাত্রা বাড়িয়ে দেয়। তাই কেউ যদি সকালে চা খেতে চান তাহলে তার আগে বিস্কুট জাতীয় কিছু হালকা খাবার খেয়ে নিবেন। 


দুই.

মাংসঃ অনেক মাংস খেতে পছন্দ করেন। সেটা হউক না গরুর মাংস কিংবা খাসির মাংস। তবে অবশ্যই মনে রাখবেন সকলের খাবার সঙ্গে অতিরিক্ত ঝালযুক্ত মাংস খাবেন না। অতিরিক্ত ঝালযুক্ত মাংসের তরকারি এ্যাসিডিক বিক্রিয়ার সৃষ্টি করে যার কারণে পেটের মধ্যে জ্বালাপোড়া সৃষ্টি হয়। এছাড়াও সকালে ঝালযুক্ত মাংসের তরকারি খাওয়ার কারণে পেটের ভিতরের পেশী সংকোচন হয়ে যাওয়ার কারণে পেটের মধ্যে ব্যাথার সৃষ্টি হয়। শুধু মাংস জাতীয় খাবারেই নয় যে কোন তরকারি বা খাবারে অতিরিক্ত ঝাল না খাওয়াই ভাল। 


তিন.

কলা. আমাদের দেশে কলা একটি জনপ্রিয় ফল। কলা এমন একটি ফল যা দেশের সব জায়গাতে কলা পাওয়া যায়। কলা হজম সহায়ক একটি ফল। কলাতে প্রচুর পরিমানে পটাসিয়াম ও ম্যাগনেসিয়াম রয়েছে যা হজমশক্তি সহায়ক। কিন্তু আমরা অনেকে জানিনা কলা কোন সময়ে খাওয়া নিষেধ। সকালে খালি পেটে কলা খাওয়া স্বাস্থ্যের জন্য ক্ষতিকর। সকালে খালি পেটে কলা খেলে ম্যাগনেসিয়াম ও পটাসিয়াম রক্তের অন্যান্য  উপাদানগুলোর ভারসাম্য নষ্ট করে দেয়। এতে করে শরীর উপর মারাত্মক ক্ষতি সাধন হতে পারে। 

এছাড়া সকলে খালি পেটে কলা খাওয়ার কারণে কলাতে থাকা ম্যাগনেসিয়াম প পটাসিয়ামের ভারসাম্য নষ্ট যায়,যার কারণে রক্তের ধমনি ও হৃদপিণ্ডের জন্য মারাত্মক ক্ষতিকর। 


চার.

কমলা. কমলা একটি জনপ্রিয় ও সুস্বাদু ফল। বর্তমানে আমাদের দেশে সারা বছর কমলা পাওয়া যায়। তবে এটাও জেনে রাখা ভাল আপনি আপনার স্বাস্থ্য ঠিক রাখার জন্য কখন কমলা খাবেন আবার কখন কমলা খাবেন না। যে কোন টক জাতীয় ফল কিংবা কমলার মধ্যে প্রচুর পরিমানে এ্যাসিড থাকে। যার কারণে পেট ও বুকে জ্বালাপোড়া সৃষ্টি করে। যাদের পেটে গ্যাস্ট্রিকের সমষ্যা রয়েছে তাদের জন্য কমলা কম খাওয়াই ভাল। 


পাঁচ. 

টমেটোঃ এটি এমন এক ধরণের সবজি আপনি যে ভাবে খুশি সেভাবে খেতে পারেন। টমেটো রান্না করে ও কাঁচা টমেটো ছালাত করে খাওয়া যায়। এছাড়াও টমেটোর মধ্যে রয়েছে দারুণ পুষ্টি গুণ। টমেটোর মধ্যে রয়েছে প্রচুর পরিমানে পেকটিন ও ট্যানিক এ্যাসিড। সকালে খালি পেটে টমেটো খাওয়া মারাত্মক ক্ষতি হতে পারে। কারণ টমেটোর মধ্যে তাকা পেকটিন ও ট্যানিক এ্যাসিড পেট থাকা গ্যাস্ট্রিক এ্যাসিডের সঙ্গে বিক্রিয়া ঘটার ফলে পাকস্থলীতে এক ধরনের অদ্রবনীয় জেলের সৃষ্টি হয়। পরবর্তীতে পাকস্থলীতে পাথরের সৃষ্টি হয়। এছাড়াও সকালে খালি পেটে কমলা খেলে গ্যাস্ট্রিক সহ নানান সমষ্যা দেখা দিতে পারে। 


ছয়.

দইঃ আমাদের মধ্যে অনেকে আছেন যারা দি খেতে ভালবাসেন। তবে দই খাওয়ার কারণে যেন কোন রকম স্বাস্থ্যের  ক্ষতি না হয় সেদিকে অবশ্যই খেয়াল রাখতে হবে। সকালে খালি পেটে দুগ্ধজাত প্রক্রিয়ায় তৈরি দই না খাওয়াই ভাল কারন সকালে খালি পেটে দই খেলে হাইড্রোক্লোরিক এ্যাসিড তৈরি করে। পরে পেটের মধ্যে এ্যাসিডির সৃষ্টি হয়। সুতরাং সকালে খালি পেটে দুগ্ধজাত প্রক্রিয়ায় তৈরি দই না খাওয়াই স্বাস্থ্যের পক্ষে ভাল। 






Post a Comment

নবীনতর পূর্বতন